প্লেসিসের বিরুদ্ধে বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগ

দক্ষিণ আফ্রিকার অন্তবর্তীকালীন অধিনায়ক ফাফ ডু-প্লেসিসের বিরুদ্ধে শুক্রবার বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগ এনেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। চলতি সপ্তাহে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টের ভিডিও ফুটেজ দেখে তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ আনে আইসিসি।

ফুটেজে দেখা যায় মুখ থেকে মিস্টি কিংবা মিন্ট জাতীয় লালা বের করে তিনি বলে প্রলেপ দিচ্ছেন। এতেই তিনি আচরণ বিধি ভঙ্গ করেছেন বলে অভিযোগ করেছে আইসিসি। অভিযোগে বলা হয়, ‘মঙ্গলবার সকালের টিভি ফুটেজে দেখা যায় প্লেসিস তার মুখের লালা মাখানো কিছু একটা বলে ঘসছেন যাতে বলের গতি পরিবর্তন করা যায়। ওই ফুটেজটি প্লেসিসকেও দেখানো হয়েছে।’

তবে এবি ডি ভিলিয়ার্সের ইনজুরির কারণে অস্ট্রেলিয়া সফরে প্রোটিয়া ক্রিকেট দলের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়কের দায়িত্ব পালনকারী প্লেসিসের দাবী তিনি অনৈতিক কিছু করেননি।
এখন এ্যান্ডি পাইক্রফটের নেতৃত্বাধীন আইসিসি’র প্যানেল রেফারিদের সামনে শুনানিতে অংশ নিতে হবে তাকে। শুনানির ফলাফল সময়মত জানিয়ে দেয়া হবে বলে আইসিসি’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

এই ঘটনায় প্লেসিসের সমর্থনে শুক্রবার মেলবোর্নে গণমাধ্যমের সামনে উপস্থিত হয় দক্ষিণ আফ্রিকা দল।

এ সময় হাশিম আমলা সাংবাদিকদের বলেন, ‘এই ঘটনায় সবাই একতাবদ্ধ হয়ে তার প্রতি সমর্থন জ্ঞাপন করছি। এই অভিযোগটি আমাদের কাছে একেবারেই হাস্যকর।’
ক্রিকেটের নিয়ম অনুযায়ী কোন ধরনের কৃত্রিম জিনিস ব্যবহার ছাড়া একজন ক্রিকেটরা বলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে পারবে। তবে ঘটনার সত্যতা প্রমাণিত হলে জরিমানা হিসেবে প্লেসিসের ম্যাচ ফি’র শতভাগ কেটে নেয়া যাবে।

হোবার্টে অনুষ্ঠিত ওই টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকা স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ইনিংস ও ৮০ রানের সহজ একটি জয় পেয়েছে। যা অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটকে সংকটের মুখে ফেলে দিয়েছে। এটি ছিল অস্ট্রেলিয়ার টানা পঞ্চম পরাজয়। যে কারণে বোর্ডের নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান রড মার্শ সরে দাঁড়িয়েছেন। অস্থায়ীভাবে তার স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন ট্রেভর হন্স।

ইতোমধ্যে সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। দুই দলের মধ্যে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টেস্টটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৪ নভেম্বর এডিলেডে।

সূত্র: বাসস, ছবি: এপি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *